২৩শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার, বিকাল ৪:২০

নিরন্তর ঘণ্টাধ্বনি

লেখক
মঙ্গলবার, ৩ আগস্ট, ২০২১

বাংলা কথাসাহিত্যে নিরীক্ষাধর্মী ও ভিন্ন ধারার শিল্পী সেলিনা হোসেন(১৯৪৭-)। নিরন্তর চর্চা ও যাপিত জীবনের অভিজ্ঞতার সমবায়ে তিনি নির্মাণ করেছেন তাঁর স্বতন্ত্র শিল্পভুবন। তাঁর কথাসাহিত্যে বাঙালি জীবনের চিরায়তরূপ, জাতিসত্তার ইতিহাস-ঐতিহ্য, মুক্তিযুদ্ধের সংগ্রামী চেতনাসহ লোকজীবনের নানা অনুষঙ্গ ফুটে উঠেছে।শুধু বিষয় নয়, সাহিত্য প্রকরণের দিকটিও তিনি নিরীক্ষা করেছেন।এ ধারায় কালজয়ী সৃষ্টি তাঁর ‘নিরন্তর ঘণ্টাধ্বনি'(১৯৮৭) উপন্যাস।এ উপন্যাসের গঠনশৈলী তাঁর দায়বদ্ধ শিল্পীসত্তার পরিচয় বহন করে।

‘নিরন্তর ঘণ্টাধ্বনি’ উপন্যাসে বিষয়ের ক্ষেত্রে বৈচিত্র্য লক্ষ করা যায়।উপন্যাসটিতে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ থেকে শুরু করে ভাষা আন্দোলন পর্যন্ত বিভিন্ন রাজনৈতিক ঘটনা স্থান পেয়েছে।এই উপন্যাসের উল্লেখযোগ্য বিষয় হলো-

*দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ ও বাংলাদেশে প্রগতিশীল আন্দোলনের প্রবাহমানতা *সাতচল্লিশের দেশভাগ *বিভাগোত্তর সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা *মন্বন্তর

*রাষ্ট্রভাষা আন্দোলন

রাজনৈতিক ঘটনাবলি থাকলেও এ উপন্যাসের মূল বিষয় ছিল সাংস্কৃতিক আন্দোলন।সোমেন চন্দের মধ্য দিয়ে ফ্যাসিবাদ বিরোধী আন্দোলন ও কমিউনিস্ট ভাবধারা বিকশিত হলেও,এই সোমেনের মধ্যেই ভাষা আন্দোলনের বীজ নিহিত ছিল। উপন্যাসের চরিত্র হিসেবে এসেছে আরও অনেক বিখ্যাত ব্যক্তিত্ব। অল্প অল্প করে উঠে এসেছে তেভাগা আন্দোলনের কথা, ইলা মিত্র, কম্পরাম সিং,মুনীর চৌধুরী ও আরও অনেকে। বেশ বিস্তৃত একটা সময়ের পটভূমি নিয়ে চমৎকার শিল্পসুষমাময় বর্ণনা উপস্থাপন করেছেন ঔপন্যাসিক সেলিনা হোসেন।

(নিরন্তর ঘণ্টাধ্বনি, সেলিনা হোসেন, প্রকাশক : কথামেলা প্রকাশন)

-তাসফিয়া তাসমিন মিশু


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো